হোম নির্বাচিত আবুল হাসান সাহিত্য পুরস্কার ২০১৯

আবুল হাসান সাহিত্য পুরস্কার ২০১৯

আবুল হাসান সাহিত্য পুরস্কার ২০১৯
835
0

‘অগ্নিরে প্রাণ দিয়া করিলুঁ আলিঙ্গন : মহাকবি কৃত্তিবাস-হত্যা রহস্য’ নামে উপন্যাসের পাণ্ডুলিপির জন্য ‘আবুল হাসান সাহিত্য পুরস্কার ২০১৯’ পেলেন অভীক ভট্টাচার্য। পুরস্কারের অর্থমূল্য এক লক্ষ এক হাজার একশ এক টাকা। আগামী বছর, হেমন্তকালীন অবকাশে আনুষ্ঠানিকভাবে এই পুরস্কার লেখকের হাতে তুলে দেয়া হবে। অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০-এ বইটি প্রকাশ করবে ‘অগ্রদূত’।

অনূর্ধ্ব ৩৫ বছর বয়ঃসীমার বাংলাভাষী লেখকদের উদ্দেশে পাণ্ডুলিপি আহ্বানের পর এই আয়োজনে ভারত ও বাংলাদেশ থেকে তিন শতাধিক পাণ্ডুলিপি জমা পড়ে। তা থেকে তিন ধাপে বাছাইয়ের পর ৪ সদস্যবিশিষ্ট জুরিবোর্ডের মাধ্যমে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হয় ভারতীয় নাগরিক অভীক ভট্টাচার্যের পাণ্ডুলিপি।

এবারে চূড়ান্তপর্বে পাণ্ডুলিপি বিচারের দায়িত্বে ছিলেন কবি, প্রাবন্ধিক শেখ ফিরোজ আহমদ, কবি-গল্পকার ও অধ্যাপক সুমন রহমান, প্রাবন্ধিক ও অধ্যাপক মোহাম্মদ আজম এবং কবি তানভীর মাহমুদ।


‘অগ্নিরে প্রাণ দিয়া করিলুঁ আলিঙ্গন : মহাকবি কৃত্তিবাস-হত্যা রহস্য’


উল্লেখ্য যে, বাংলাভাষী তরুণ লেখকদের জন্য এই পাণ্ডুলিপি-পুরস্কারটি প্রবর্তন করেছে অনলাইন সাহিত্যপত্রিকা ‘পরস্পর’ এবং প্রকাশনাসংস্থা ‘অগ্রদূত অ্যান্ড কোম্পানি’। পুরস্কারটির আর্থিক সহযোগী প্রতিষ্ঠান ইউসিবি (ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক)। পুরস্কার কমিটির আহ্বায়ক বিশিষ্ট নাট্যজন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দীন ইউসুফ।

ইতিপূর্বে আবুল হাসান সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেছেন অনুপম মণ্ডল ও মোজাফ্‌ফর হোসেন যথাক্রমে কবিতা ও গল্পের পাণ্ডুলিপির জন্য।

অভীক ভট্টাচার্যের জন্ম ২৮ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪, সিউড়ি, বীরভূম। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ভাষা ও সাহিত্য বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তারপর পিএইচডি করেছেন সন্দীপন চট্টোপাধ্যায়ের ছোটগল্প নিয়ে। পেশায় অধ্যাপক, পাণ্ডবেশ্বর কলেজ, পশ্চিম বর্ধমান। তাঁর প্রকাশিত বই : ‘তামসধৈবত’ (কবিতা, ২০১১, ভাষাবন্ধন), ‘খবর-ই-আমিন’ (কবিতা, ২০১৭, রাবণ)।